Wednesday, October 2, 2019

এক দুখী মেয়ের গল্প ---- বিপত্তারণ মিশ্র

এক দুখী মেয়ের গল্প          ---- বিপত্তারণ মিশ্র


আজ এক গল্প বলি ---

জানিনা যাদের গল্প তারা শুনবে কিনা ---
এক টোটো চালক ,দুই ছেলের বাপ, 
বৌ ছ'বাড়িতে দুবেলা খাটে। 
লোন করে কেনা টোটোর কিস্তি মেটায় বউ, 
আর লোকটা তার কামাই 
চা ,বিড়ি, মদ আর টিকিট কেটে ফোটায়!


সন্ধ্যায় লাল চোখে বাড়ি এসে --- 
হয় বউকে সন্দেহ ক'রে 
নয়তো পরদিন সকালের মদের পয়সা চেয়ে 
লাল চোখ আরও লাল করে! 
বউ গাল খায় গাদা গাদা, 

মার খায় আরো বেশি --- 
তবু লোক ডাকেনা, থানায় যায় না --- 
শুধু সে তার ছেলেদের বাপ বলে, 
আর পোড়া মনের ভালোবাসার আদিম অভ্যাসে!


আর কোথায় বা যাবে? 
মা বাপ নেই, 
ভাই একটা আছে ---
ফোটাটা নেয় এটুকুই অনেক!


আর স্বামী ছাড়া মেয়েকে
তাড়া করার জন্যে
রাস্তায় কুকুর বড্ড বেশি,
আরও বেশি ---
কুকুরে না কামড়ালেও 
জলাতঙ্ক হয়েছে রটিয়ে দেবার লোক! 


তাই মার খায়, কাঁদে, ঝগড়া করে, 
আবার মদো গন্ধ বুকে নিয়ে রাত কাটায়! 
ভোরে ভোরে ঘরের কাজ সেরে --- 
ছেলেদের আর ওর খাবার করে 
ছ'বাড়ি কাজে যায়। 


আমাদের বাড়িগুলো ঝকঝকে তকতকে ক'রে ---
আবার ফেরে মদো গন্ধের আস্তাবলে!
আর মাঝে মাঝে ছেলেদের বুকে জড়িয়ে --- 
বাঁচার স্বপ্ন দেখে!