:::::::::::::::::::::::আপনাকে স্বাগতম ::::::::::::::::::::::: যাঁদের_ লেখায়_ সমৃদ্ধ_ হয়েছে _online_ পত্রিকা ::::::::::::::: ডঃ _তৈমুর _খান,::::::::_ড:_ সুহাস_ রায়, ::::::::_ড._সুজিতকুমার _বিশ্বাস,:::::::: ডা._মুহাম্মাদ _মাহতাব_ হোসাইন_ মাজেদ_ :::::::: তন্মনা_ চ্যাটার্জী::::::::পীযূষ_ কান্তি _বড়ুয়া,_::::::::ডি _কে_ পাল ::::::::সবিতা_ কুইরী_ :::::::: সীমা _চক্রবর্তী,:::::::: _শুভ্র_ঘোষ_ :::::::: নয়নিকা_ (হাওড়া, ভারত)::::::::কমল_ পাল :::::::: প্রিয়নীল _পাল :::::::: জাহ্নবী_ঝা,:::::::: সুমন_ ঘোষ_ ,::::::::পাইন, ::::::::অর্কপ্রভ ভট্টাচার্য,::::::::উমা ভট্টাচার্য ::::::::অভ্র ,:::::::: মেহেদী হাসান তুহিন, :::::::: অর্পিতা মুখার্জী:::::::: বিকাশ দাস(বিল্টু) :::::::: অর্চন মুখার্জী:::::::: আবু কওছর,:::::::: চন্দন সেনগুপ্ত, :::::::: খোদেজা মাহবুব আরা :::::::: আফফান ইয়াসিন :::::::: কৌশিক চক্রবর্ত্তী :::::::: নিসর্গ নির্যাস মাহাতো :::::::: অরিজিত চট্টোপাধ্যায় :::::::: শর্মিষ্ঠা গুহ রায়(মজুমদার) :::::::: সুবীর কুমার রায় :::::::: শ্যামল কুমার রায়,:::::::: তন্ময় সিংহ রায় :::::::: আবু ফারুক,:::::::: সঞ্জীব সেন,:::::::: সংঘমিত্রা রায়চৌধুরী,:::::::: প্রবীর রায়, :::::::: এ আর আহম্মেদ সুজন,:::::::: রাজা চৌধুরী :::::::: ইন্দ্র দাশগুপ্ত:::::::: সৌরভ আম্বলী,:::::::: মুবিন আহমেদঅর্ণব মল্লিক::::::::, চিত্তরঞ্জন সাহা চিতু,:::::::: চন্দনকৃষ্ণ পাল :::::::: আমান রহমান :::::::: দেবজিৎ বিশ্বাস :::::::: সাবিহা শুচি ::::::::
:::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::::মলয় চন্দন মুখার্জ্জী , :::::::: রাকিবুল ইসলাম , :::::::: তানজিমুল আয়ান তানাফ , :::::::: সুব্রত মজুমদার :::::::: সব্যসাচী নজরুল :::::::: রণেশ রায়::::::::,সুকান্ত মজুমদার, :::::::: মিজানুর রহমান মিজান, :::::::: সঞ্চিতা রায় ,:::::::: সুদীপ ঘোষাল,:::::::: প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, :::::::: রাণা চ্যাটার্জী,:::::::: বাবুল আচার্যী, ::::::::নিজামুদ্দিন মণ্ডল, ::::::::ফরহাদ হোসেন,:::::::: অভিজিৎ দাশগুপ্ত ::::::::,ইন্দ্রানী দলপতি,:::::::: মাধব মণ্ডল, :::::::: মৌ সাহা, :::::::: অলোক আচার্য,:::::::: রঘুনাথ সাহা, :::::::: দেবালী মিশ্র, :::::::: সুকান্ত মজুমদার,::::::::নীহারিকা সেন, ::::::::বিশ্বনাথ পাল , ::::::::সৌমি দাস ,::::::::নীহারিকা সেন ::::::::বটু কৃষ্ণ হালদার, পলাশ পুরকাইত :::::::: সৌমেন চ্যাটার্জি::::::::,কাম্রুন নাহার:::::::: অপূর্ব শীট:::::::: সঞ্জীব কুমার ধর::::::::প্রদীপ চক্রবর্তী,:::::::: বিকাশ দাস:::::::: সুপ্রতীম ওঝা:::::::: মিঠুন মণ্ডল:::::::: সঞ্জিত মণ্ডল:::::::: যাকারিয়া আহমদ :::::::: বিপ্লব ঠাকুর:::::::: আব্দুল্লাহ্ আল সিয়াম:::::::: রাজা বাগচী,::::::::রঞ্জিত পাল ::::::::মুস্তাফিজ রহমান :::::::: রিঙ্কু মণ্ডল :::::::: কৃপাণ মৈত্র ::::::::

Friday, March 29, 2019

একদিন // মৈত্রেয়ী চক্রবর্ত্তী



talkontalk.com
.

নাম না জানা, স্রোতস্বিনী এক নদীর ধারে বসিয়া থাকিতে থাকিতে এক মেঘলা মধ‌্যাহ্নে নিজের অজান্তেই অপরূপ কয়েক মুহুর্তের সাক্ষী হইয়াছিলাম একদিন। প্রকৃতি দেবতা যেনতার সম্পূর্ণ অজানা এক প্রতিকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করিবার অধিকার দিয়াছিলেন আমায় সেইদিন।
.
সকাল হইতে ক্রমাগত প্রবল বর্ষণ হওয়ার কারণে মন বড় বিষণ্ন হইয়া ছিল। নদীসংলগ্ন বনাঞ্চলের শীতল সমীরণ গ্রহণ করিবার উদ্দেশ‌্যেই নীরবে নদীর ধারে বসিয়া ছিলাম মধ‌্যাহ্নে। হঠাৎ সামান‌্য রৌদ্রের আভাস পাইয়া চোখ তুলিতেই একইসঙ্গে বিস্মিত এবং চমকিত হইলাম। দেখিলাম, ঘন কালো মেঘরাশির মধ‌্য দিয়ে কে যেন বিস্তৃত এক পথ রচনা করিয়া দিয়াছে। দেখিয়া বোধ হয়, সে পথ বুঝি স্বর্গদ্বার অবধি চলিয়া গিয়াছে। সেই পথেই সূর্যরশ্মি অনেকগুলি দীর্ঘ সরলরেখার আকারে আসিয়া যেন একেবারে পৃথিবীর ভূমি স্পর্শ করিতেছে, যেন আশীর্বাদ করিতেছে সমগ্র জগতকে।
.
আপাতদৃষ্টিতে হয়তো এ নিতান্তই সামান‌্য, সাধারণ এক ঘটনা, কিন্তু আমি কী দেখিলাম জানি না, সে দৃশ‌্য যেন আমার পার্থিব শরীর ভেদ করিয়া অন্তরকে সম্মোহিত করিয়া ফেলিল। বেশীক্ষণ নয়, ক্ষণেকের জন‌্য দেখা দিয়াই সে দৃশ‌্য হারাইয়া গিয়াছিল,কিন্তু আমার মননে সারাজীবনের জন‌্য এক গভীর রেখাপাত করিয়া গিয়াছিল।
.
শ্রদ্ধেয় শ্রী বিভূতিভূষণ বন্দ‌্যোপাধ‌্যায় মহাশয় রচিত 'আরণ‌্যক' এর স্বাদগ্রহণ করিবার সৌভাগ‌্য আমার পূর্বেই হইয়াছে, তাই বোধ করি, এমন অভূতপূর্ব প্রাকৃতিক দৃশ‌্য অন্তরকে প্রফুল্ল করিয়াছিল সেইদিন।
.
বিভূতিভূষণ মহাশয়ও এমনই টুকরো টুকরো সৌন্দর্যরূপ পুষ্পরাজির সম্ভার রচনা করিয়া গিয়াছেন আজীবন। তিনি ছিলেন প্রকৃতির পূজারী। এমন স্নিগ্ধ, নীরব অথচ তেজোদ্দীপ্ত এই স্বর্গীয় দৃশ‌্য দেখিলে, না জানি, কত আনন্দই লাভ করিতেন!