Wednesday, November 7, 2018

ভাইফোঁটা - শ্যামল কুমার রায়




      ভায়ের কপালে দিলাম ফোঁটা, 
     যমের দোয়ারে পড়ল কাঁটা, 
    যমুনা দেয় যম কে ফোঁটা ।
     চিরনশ্বর এ জগতে ভায়ের দীর্ঘায়ু 
ও মঙ্গল কামনার এ উৎসব ।
বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণের
 এ এক অঙ্গ বটে।
খুনসুটি আর ঝগড়া ঝাঁটি ভাই , 
বোনেতে হয় বৈকি! 
এ সবেরই পূর্ণছেদ টানে ভাইফোঁটা 
নামক অনুষ্ঠানটি ।
ছোট্ট কিশোরীও পরে শাড়ি , 
ভায়ের সাথে করবে না আর আড়ি ।
ভাইও একটু হয়েছে বড়, বোনের দায়িত্ব 
নেবে বৈকি! 
কিছু বছর আগেও ছিল এর ঘনঘটা, 
নিউক্লিয়ার ফ্যামিলির পড়েনি তখনও ছটা ।
আজও অবশ্য ভাইফোঁটা হয় , 
তুতো ভাইবোনেতেই কাজ চলে যায় ।
ভবিষ্যতের ভার ভবিষ্যতই নিক , 
আমরা বরঞ্চ একটু সামনে তাকাই । 
ফেমিনিস্টরা অবশ্য হচ্ছে সরব - 
বোন ফোঁটা নিয়ে কবে করব গরব ?
ভিন্নমত কোনো চাপের নয়, 
সুস্থ চেতনার লক্ষণ বৈ , আর কিছু নয় ।
ভাবতে বড় কষ্ট লাগে, অতীতের
 স্মৃতি যখন মনে জাগে , 

বোনের সম্ভ্রম বাঁচাতে গিয়ে, 
ভাই যে দিল তাজা প্রাণ! 
সমাজ কবে সুস্থ হবে - নারী 
সুরক্ষা হবে সবার আগে?  
উল্টো ছবিও বেশ ভয়াবহ, 
অনার কিলিং এর ছায়াও যে দীর্ঘতর ।
বাঁচাতে গিয়ে পরিবারের মান , 
ভায়ের হাতে বোন যে দিল প্রাণ !
তার চেয়ে ঠাকুর তুমি হালটা ধরো , 
চন্দনের ফোঁটায় চেতনা ভরো , 
সমান হোক সমানাধিকার, 

ভাই আর বোন - এছাড়া আবার কার ?